ঘুম নেই! মৃত্যু নিশ্বাস ফেলছে কাছেই-বলছে সমীক্ষা, জেনে নিন

‘আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন’-এর একটি জার্নালে প্রকাশিত কিছু তথ্য অনুয়ায়ী, পেনসিলভেনিয়ার ১৩৪৪ জন পূর্ণবয়স্ক মানুষকে নিয়ে সমীক্ষা চালানো হয়। অংশগ্রহণকারীদের গড় বয়স ছিল ৪৯ বছর ও তাদের মধ্যে ৪২ শতাংশ ছিল পুরুষ।

ডায়াবেটিস, ওবেসিটি, ব্লাড প্রেসার, কোলেস্টরল— এই রোগগুলি শরীরে থাকলে সব থেকে বেশি নজর দিতে হয় ঘুমের দিকে। না হলে হৃদরোগে মৃত্যু হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায় দ্বিগুণ— এমন কথাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

‘আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশন’-এর একটি জার্নালে প্রকাশিত কিছু তথ্য অনুয়ায়ী, পেনসিলভেনিয়ার ১৩৪৪ জন পূর্ণবয়স্ক মানুষকে নিয়ে সমীক্ষা চালানো হয়। অংশগ্রহণকারীদের গড় বয়স ছিল ৪৯ বছর ও তাদের মধ্যে ৪২ শতাংশ ছিল পুরুষ।

৩৯ শতাংশ অংশগ্রহণকারীর শরীরে হৃদরোগ হওয়ার তিনটি সম্ভাব্য কারণ দেখেন বিশেষজ্ঞরা, যাকে ‘মেটাবলিক সিনড্রোম’ বলা হয়। যার মধ্যে রয়েছে কোলেস্টরল, ব্লাড প্রেসার, ব্লাড সুগার, ট্রাইগ্লিসারাইড ও ৩০-এর উপরে বডি-মাস ইন্ডেক্স।

অংশগ্রহণকারীদের প্রত্যেককে প্রায় ১৬ বছর ধরে স্টাডি করে এই সমীক্ষার রিপোর্ট পেশ করা হয়। এঁদের মধ্যে ২২ শতাংশ ব্যক্তি মারা গিয়েছেন। জীবিতদের মধ্যে যাঁরা দিনে ৬ ঘণ্টার কম ঘুমোন, তাঁদের হৃদরোগে মৃত্যুর সম্ভাবনা ২.১ গুন। তুলনায়, বাকিদের মৃত্যুর হারের ১.৯৯ গুন সম্ভাবনা।